সোমবার ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

এখন থেকে পাল্টা আক্রমণের হুঁশিয়ারি মির্জা আব্বাসের

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শনিবার, ২০ মে ২০২৩ | প্রিন্ট

এখন থেকে পাল্টা আক্রমণের হুঁশিয়ারি মির্জা আব্বাসের

আগামী দিনে সরকারকে বানের পানির মতো ভাসিয়ে দেয়ার হুঙ্কার দিয়ে দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, ‘এখন থেকে পাল্টা আক্রমণ করতে হবে। কেউ আমাদের কামড়াবে, আর আমরা বসে বাঁশি বাজাব তা হতে পারে না।’

শনিবার (২০ মে) বিকেলে রাজধানীর মতিঝিলে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আয়োজিত সমাবেশে তিনি একথা বলেন। উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অধীনস্থ আদালত এবং সরকারের অবজ্ঞা, গায়েবি মামলায় নির্বিচারে গ্রেপ্তার, মিথ্যা মামলা ও পুলিশি হয়রানি, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, বিদ্যুতের লোডশেডিং, আওয়ামী সরকারের সর্বগ্রাসী দুর্নীতিসহ ১০ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে রাজধানীর মতিঝিলে পীরজঙ্গী মাজারের সামনে এই জনসমাবেশ হয়।

মির্জা আব্বাস বলেন, ‘বর্তমান অবৈধ নিশিরাতের সরকারের বিরুদ্ধে আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন। আসুন দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে প্রস্তুতি নিই। ইনশাআল্লাহ আগামী দিনে এই সরকারকে বানের পানির মতো ভাসিয়ে দিব।’

ব্যালটের বদলে বুলেট কেন —এমন প্রশ্ন রেখে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘অধিকারের কথা বলতে গেলে পুলিশের পিটুনি খাচ্ছে মানুষ। এই দেশের মানুষ ভোটাধিকার আদায়ের জন্য রাস্তায় নামলেই তাদের ওপর গুলি চালানো হয়, যা বিশ্বের কোনো সভ্য দেশে হয় না। প্রতিবেশী ভারতেও গুলি করা হয় না। শুধু ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য খুনি হাসিনার সরকার গুলি চালায়। তারা ভোটে নির্বাচিত নয় বলেই ভোটের তোয়াক্কা করে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজকে সরকারের শিল্পপ্রতিমন্ত্রী নিজের মুখেই বলেছেন, ‘সব কথা বলতে গেলে দেখবেন আমার লাশটা রাস্তায় পড়ে আছে’। এ ধরনের কথা যখন মন্ত্রী বলেন তখন আমরা আর কী বলতে পারি। আমাদের নেতাকর্মীরা তো অহরহ মার খাচ্ছে, গুলি খাচ্ছে। তাদের লাশ পড়ছে।’

খুলনায় বিএনপির কর্মসূচিতে পুলিশের গুলির অভিযোগ করে বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, ‘আপনারা তো আমাদের ট্যাক্সের টাকায় চলেন। যারা গুলি করছেন মনে রাখবেন এই পোশাক কিন্তু সারা জীবন আপনাদের গায়ে থাকবে না। সুতরাং গুলি চালানোর সময় ভবিষ্যতের জন্য এবং পরিবার ও সন্তানের বিষয়টি চিন্তা করবেন।’

সম্প্রতি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের বিরুদ্ধে মামলার কথা তুলে ধরে মির্জা আব্বাস বলেন, ‘৪৮ বছর পর যদি আপনারা জিয়াউর রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিতে পারেন। আমরাও ৪৮ বছর পর আপনাদের বিরুদ্ধে আজকের অত্যাচার নিপীড়নের বিচার করতে পারব।’

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক মো. আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে ও সদস্যসচিব মো. রফিকুল আলম মজনুর পরিচালনায় জনসমাবেশে বক্তব্য দেন—বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা আবুল খায়ের ভুঁইয়া, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, ব্যারিস্টার নাসির উদ্দিন অসীম, মীর সরফত আলী সপু, কামরুজ্জামান রতন, রকিবুল ইসলাম বকুল, আমিরুল ইসলাম খান আলিম, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, মহানগর বিএনপির নবীউল্লাহ নবী, হাবিবুর রশিদ হাবিব, লিটন মাহমুদ, যুবদলের সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, মহিলা দলের আফরোজা আব্বাস, কৃষকদলের শহীদুল ইসলাম বাবুল, স্বেচ্ছাসেবক দলের এস এম জিলানী, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাদেক আহমেদ খান, ওলামা দলের নজরুল ইসলাম তালুকদার, মৎস্যজীবী দলের রফিকুল ইসলাম মাহতাবসহ অনেকে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১৬:১৩ | শনিবার, ২০ মে ২০২৩

Swadhindesh -স্বাধীনদেশ |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

(705 বার পঠিত)
advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

Advisory Editor
Professor Abdul Quadir Saleh
Editor
Advocate Md Obaydul Kabir
যোগাযোগ

Bangladesh : Moghbazar, Ramna, Dhaka -1217

ফোন : Europe Office: 560 Coventry Road, Small Heath, Birmingham, B10 0UN,

E-mail: news@swadhindesh.com, swadhindesh24@gmail.com