শুক্রবার ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

ঢাকায় ভোটার উপস্থিতি কম

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ০৭ জানুয়ারি ২০২৪ | প্রিন্ট

ঢাকায় ভোটার উপস্থিতি কম

সকাল ৮টা থেকে চলছে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। কুয়াশাচ্ছন্ন পরিবেশে সকালে ভোটকেন্দ্রগুলো ফাঁকা চোখে পড়লেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে ভোটার উপস্থিতি। নির্বাচন কমিশন (ইসি) জানিয়েছে, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রথম চার ঘণ্টায় ১৮ দশমিক ৫ শতাংশ ভোট পড়েছে। রাজধানী ঢাকার ভোটকেন্দ্রগুলোতেও ভোটার উপস্থিতি কম। তবে দিন গড়াতেই ভোটার সংখ্যা বাড়তে পারে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী কর্মকর্তারা।

সকাল তখন সাড়ে ১০টা। আজিমপুর কবরস্থান থেকে কিছুদূর এগিয়ে গেলেই ঢাকা-৭ নির্বাচনী আসনের কেন্দ্র-১০, নতুন পল্টন লাইন স্কুল অ্যান্ড কলেজ। নির্বাচনী কেন্দ্রের সামনে খুব একটা ভিড় নেই। এই কেন্দ্রে দুই ঘণ্টায় ভোট পড়েছে মাত্র ১ দশমিক ৯ শতাংশ। এ কেন্দ্রে দায়িত্বরত প্রিসাইডিং অফিসার আহসানুজ্জামান জাগো নিউজকে জানান, এ কেন্দ্র মোট পুরুষ ভোটার ৪ হাজার ১১৮ জন। সকাল ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ৮টি বুথে মোট ৭৮টি ভোট পড়েছে। শতকরা হিসাবে ভোট পড়েছে ১ দশমিক ৯ শতাংশ।

  xccc

রাজধানীর শান্তিনগরে হাবিবুল্লাহ বাহার ইউনিভার্সিটি কলেজে ঢাকা-৮ আসনের একটি বড় কেন্দ্র। সেখানে ভোট শুরুর আগেই ভোটারদের লাইন দেখা যায়। তবে ভোট শুরুর পর থেকে আর ভোটারদের উপস্থিতি খুব একটা নেই। দুই ঘণ্টায় ভোট পড়ে মাত্র ৭৫ থেকে ৮০টি। যেখানে ভোটার দুই হাজারের বেশি। ওই কেন্দ্রে আজ ভোট দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। সে কারণে সকালে নেতাকর্মীদের উপস্থিতিও ছিল ভালো। সিইসি ভোট দিয়ে চলে যাওয়ার পর অনেকটা ভোটার শূন্য হয়ে যায় কেন্দ্র। ভোট শুরুর আগে কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, সকাল ৮টার আগেই প্রস্তুত ছিল ভোটকেন্দ্র। দুটি কক্ষে আলাদা পাঁচটি বুথ করা হয়েছে। ভোট শুরু হয় ৮টায়। সে সময় ১২ থেকে ১৪ জন ভোটারকে ভোট দেওয়ার জন্য ভেতরে যেতে দেখা গেছে।

ঢাকা-১০ আসনের বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে সকাল থেকে ঘুরে নৌকা ছাড়া অন্য প্রার্থীদের পোলিং এজেন্ট তেমন খুঁজে পাওয়া যায়নি। কোনো কেন্দ্রে নৌকা ছাড়া অন্য প্রার্থীদের এজেন্ট একজনও নেই। গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুলে মোট দুটি কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। কেন্দ্র-১ এ মূল ভবনের নিচতলায় অবস্থিত। এতে ভোট কক্ষ রয়েছে ৫টি। পুরুষ ভেটার ১১১৬ এবং নারী ৭৬৪ জন। কেন্দ্র-২ মূল ভবনের দ্বিতীয় তলায় স্থাপন করা হয়েছে। এই কেন্দ্রে মোট ৮টি ভোট কক্ষ রয়েছে। এতে পুরুষ ভোটার ২০০৩ এবং নারী ভোটার রয়েছে ১২৯৭ জন। প্রতিষ্ঠানটির দুইটি কেন্দ্র মিলিয়ে মোট ১২টি ভোট কক্ষ রয়েছে। এর মধ্যে ১২টি কক্ষেই নৌকার পোলিং এজেন্ট থাকতে দেখা গেছে। এছাড়া ছড়ি মার্কার দুইজন এজেন্ট রয়েছে। বাকি অন্য প্রার্থীদের কোনো এজেন্ট নেই। শুধু তাই এই কেন্দ্রসহ অন্যগুলোতেও ভোটার উপস্থিতি তুলনামূলক কম।

 z z

ঢাকা-৬ আসনের বানিয়ানগর উচ্চ বিদ্যালয়, একরামপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঢাকা সেন্ট্রাল গার্লস হাইস্কুল ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিটি কেন্দ্রে প্রিসাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসারদের পাশাপাশি নৌকা প্রার্থীদের এজেন্ট রয়েছেন। দু-একটি কেন্দ্রে ঈগল, মিনার প্রতীকের এজেন্টদের দেখা গেছে। ঢাকা সেন্ট্রাল গার্লস হাইস্কুলের প্রিসাইডিং অফিসার মতিউর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, এই কেন্দ্রে ৬টা বুথ। প্রতিটি বুথেই নৌকার একজন করে এজেন্ট রয়েছেন। এছাড়াও মিনার ও বাইসাইকেল প্রতীকের একজন করে এজেন্ট রয়েছেন। তবে সব প্রস্তুতি থাকলেও ভোটার সংখ্যা কম।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। তবে গুলশান-২ এলাকার গুলশান মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি একেবারেই কম। এই স্কুলের পাঁচটি কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা ১৩ হাজারের বেশি। সকাল ১০টা পর্যন্ত দুই ঘণ্টায় ভোট পড়ে মাত্র ১৪টি।

এছাড়া ঢাকার অন্যান্য নির্বাচনী আসনের ভোটকেন্দ্রগুলোতেও দেখা গেছে একই চিত্র।

ccccc

এদিকে, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশের প্রত্যেকটা ভোটকেন্দ্রে অল্প অল্প ভোট পড়ছে বলে মন্তব্য করেছেন খোদ প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিতি বাড়বে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে মনিটরিং সেল পরিদর্শন করে তিনি এমন মন্তব্য করেন। মনিটরিং সেল পরিদর্শন শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘মাত্র শুরু হয়েছে। ভোটার উপস্থিতি আশা করি আরও বাড়বে। প্রত্যেকটা সেন্টারে আমি খোঁজ নিয়েছি। ভোট হয়েছে অল্প অল্প। কোথাও ২৫টি কোথাও ৪০টি।’

হরতাল ও সহিংসতার কারণে ভোটে প্রভাব পড়বে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এটা আমি বলতে পারবো না। আমরা শুধু ভোটটা ম্যানেজ করছি। ভোটাররা কীভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাবে সে ব্যাপারে আমি কোনো মন্তব্য করবো না।’

সিইসি যে কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন সেই কেন্দ্রের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, আসলে মনে হচ্ছে প্রতিদ্বন্দ্বী বা প্রতিপক্ষ প্রার্থী যারা তাদের পোলিং এজেন্ট দেওয়ার সামর্থ্য নেই। পোলিং এজেন্টের ওপর গুরুত্ব আরোপ করে তিনি বলেন, আমরা খুব জোর দিয়ে বলেছিলাম প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ভোট হতে হলে কেন্দ্রে অবশ্যই প্রত্যেকটা প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট থাকতে হবে। আমি যেগুলো পেয়েছি সবাই একই দলের। বাদ-বাকি প্রার্থীদের কোনো লোকজন দেখি নাই।

দেশের ২৯৯ আসনে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলবে। দেশের ৪৪ নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের মধ্যে ২৮টি দল ভোটে অংশ নিচ্ছে। বিএনপিসহ সমমনা ১৬টি রাজনৈতিক দল ভোট বর্জন করেছে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ০৮:০৩ | রবিবার, ০৭ জানুয়ারি ২০২৪

Swadhindesh -স্বাধীনদেশ |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

Advisory Editor
Professor Abdul Quadir Saleh
Editor
Advocate Md Obaydul Kabir
যোগাযোগ

Bangladesh : Moghbazar, Ramna, Dhaka -1217

ফোন : Europe Office: 560 Coventry Road, Small Heath, Birmingham, B10 0UN,

E-mail: news@swadhindesh.com, swadhindesh24@gmail.com