সোমবার ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরকার এখন ভারত বন্দনায় ব্যস্ত: চরমোনাই পির

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪ | প্রিন্ট

সরকার এখন ভারত বন্দনায় ব্যস্ত: চরমোনাই পির

সরকারের শীর্ষ নেতারা এখন ভারত বন্দনায় ব্যস্ত বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করিম।

তিনি বলেন, ‘দেশবিরোধী সব আধিপত্যবাদী শক্তিকে সম্মিলিতভাবে রুখে দিতে হবে। দেশ স্বাধীন হয়েছে দিল্লির গোলামির জন্য নয়, মাথা উঁচু করে নিজের অধিকার আদায়ের জন্য।’

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) সন্ধ্যায় মিরপুর কনভেনশন সেন্টারে বিশিষ্টজনদের সঙ্গে মতবিনিময় ও ইফতার মাহফিলে এসব কথা বলেন তিনি। বদর দিবস উপলক্ষে এ আয়োজন করে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা উত্তর।

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করিম বলেন, ‘স্বাধীনতা যুদ্ধে নেতৃত্ব দেওয়া সংগঠন আওয়ামী লীগের হাতেই আজ স্বাধীনতা ও দেশ বিপন্ন। ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে নওগাঁ সীমান্ত এলাকায় ভারতের বিএসএফ আল আমীন নামের এক যুবককে হত্যা করে বাংলাদেশের স্বাধীনতার প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করেছে। প্রতিনিয়ত সীমান্তে ভারতের বিএসএফ বাংলাদেশিদের পাখির মতো গুলি করে হত্যা করেই যাচ্ছে, কিন্তু ভারতের পদলেহি সরকার প্রতিবাদ করার সাহসও পাচ্ছে না। বরং সরকারের শীর্ষ নেতারা ভারত বন্দনায় ব্যস্ত।’

এসময় তিনি ঐতিহাসিক বদরের চেতনা ধারণ করে ইসলাম ও দেশবিরোধী শক্তিকে রুখে দেওয়ার আহ্বান জানান। দেশীয় নব্য ভারতীয় রাজাকারদের বিচারের মুখোমুখি করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

গাজায় গণহত্যা চালিয়ে ফিলিস্তিনিদের নিশ্চিহ্ন করতে চায় ইসরায়েল- এমন মন্তব্য করে চরমোনাই পির বলেন, ‘এটা বিশ্বাবাসীকে বুঝতে হবে। গণহত্যার অভিযোগ জাতিসংঘে গেলেও জাতিসংঘের পক্ষ থেকে এখনো কেন ইসরায়েলের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ এবং জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধ করতে বলা হয়নি।

ইসলামী আন্দোলনের আমির আরও বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও অঙ্গীকার ভূলুণ্ঠিত করে আওয়ামী লীগ জাতির সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। ফলে এখনো বাংলার মানুষ প্রকৃত অর্থে পরাধীন ও শোষণ বৈষম্যের শিকার। সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক সুবিচারের ভিত্তিতে একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন নিয়ে যে স্বাধীনতা যুদ্ধ ও বিজয় অর্জিত হয়েছিল, আওয়ামী লীগ সেসব অর্জনকে ধ্বংস করেছে।’

অনুষ্ঠানে দলটির শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১৬:৩৪ | বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪

Swadhindesh -স্বাধীনদেশ |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement
Advisory Editor
Professor Abdul Quadir Saleh
Editor
Advocate Md Obaydul Kabir
যোগাযোগ

Bangladesh : Moghbazar, Ramna, Dhaka -1217

ফোন : Europe Office: 560 Coventry Road, Small Heath, Birmingham, B10 0UN,

E-mail: news@swadhindesh.com, swadhindesh24@gmail.com