বৃহস্পতিবার ২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নতুন পরিকল্পনা আলিয়ার, রাজি করিয়েছেন রণবীরকেও

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ০৯ আগস্ট ২০২৩ | প্রিন্ট

নতুন পরিকল্পনা আলিয়ার, রাজি করিয়েছেন রণবীরকেও

আলিয়া ভাট, বলিউডের বর্তমান প্রজন্মের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী তিনি। বিনোদন জগতে পা রাখার ১০ বছরের মধ্যেই নিজেকে সাফল্যের সেই উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। এই মুহূর্তে প্রযোজকদের প্রথম পছন্দ, পরিচালকদেরও নয়নের মণি আলিয়া। অভিনয়ের পাশাপাশি পা রেখেছেন প্রযোজনার জগতেও। বোন শাহীন ভাটের সঙ্গে জুটি বেঁধে শুরু করেছেন ‘ইটারনাল সানশাইন প্রোডাকশন্স’।

 

অন্যদিকে, চলতি মাসেই মুক্তি পেতে চলেছে তার প্রথম হলিউড ছবি ‘হার্ট অব স্টোন’। ক্যারিয়ারের ১১তম বর্ষে এসে যেন নতুন উদ্যমে কাজে মন দিয়েছেন আলিয়া। তবে পেশাগত জীবনের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবনের দিকেও সমান নজর মহেশ ভাট কন্যার। গত বছরের এপ্রিলেই বিয়ে সেরেছেন রণবীর কাপুরের সঙ্গে। নভেম্বরে মা হয়েছেন কন্যাসন্তানের। এখন আলিয়ার জীবনের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ মানুষ তার ছোট্ট মেয়ে রাহা কাপুর। পেশাগত দায়বদ্ধতা সামলাতে গিয়ে পরিবারকে উপেক্ষা করতে মোটেই রাজি নন আলিয়া। সেই ভাবনা থেকেই নতুন পরিকল্পনা অভিনেত্রীর। কী সেই পরিকল্পনা?

 

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে আলিয়া জানান, এই মুহূর্তে বিশ্বের সব থেকে সুখী মানুষ তিনি। পরিবার ও পেশা— দুই ক্ষেত্রেই সৌভাগ্যবতী তিনি। সেই আনন্দেই নাকি এবার একটি ট্যাটু করিয়ে ফেলতে চান নায়িকা।

 

শুধু তিনি নিজে নন, আলিয়া জানান, রণবীরকেও নাকি একটি ট্যাটু করানোর জন্য রাজি করিয়ে ফেলেছেন অভিনেত্রী। সেই ট্যাটুর বিষয় কী? তা নিয়ে ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে জল্পনা। যুগলের অনুরাগীদের অনেকের ধারণা, মেয়ে রাহাকে নিয়েই কোনও এক বিশেষ ট্যাটু করাবেন আলিয়া ও রণবীর। আবার অনেকের মত, নিজেদের বিশেষ কোনও স্মৃতিকে ধরে রাখতেই এই পরিকল্পনা করেছেন আলিয়া।

 

রণবীরের প্রেমে পড়ে ট্যাটু করিয়েছেন, এমন উদাহরণ এই প্রথম নয়। রণবীরের সঙ্গে প্রেমে সম্পর্কে থাকাকালীন নিজের ঘাড়ে তাঁর নামের আদ্যক্ষর ‘আরকে’ ট্যাটু করিয়েছিলেন দীপিকা। সেই ছবি ভাইরাল হয়েছিল সর্বত্র। রণবীরের সঙ্গে বিচ্ছেদ হওয়ার পরেও দীর্ঘ দিন দীপিকার ঘাড়ে দেখা গিয়েছিল সেই ট্যাটু। তা নিয়ে অভিনেত্রীকে কম প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়নি।

 

অন্যদিকে, আলিয়ার ঘাড়েও একটি ট্যাটু রয়েছে, যাতে লেখা ‘পটাকা’। এবার কী ট্যাটু করান তা দেখার জন্যই অধীর আগ্রহ বিরাজ করছে অনুরাগীদের মধ্যে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ০৫:৪৪ | বুধবার, ০৯ আগস্ট ২০২৩

Swadhindesh -স্বাধীনদেশ |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

Advisory Editor
Professor Abdul Quadir Saleh
Editor
Advocate Md Obaydul Kabir
যোগাযোগ

Bangladesh : Moghbazar, Ramna, Dhaka -1217

ফোন : Europe Office: 560 Coventry Road, Small Heath, Birmingham, B10 0UN,

E-mail: news@swadhindesh.com, swadhindesh24@gmail.com