বুধবার ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কোস্টারিকার সাথে ৪-২ গোলে জয়ের পরও গ্রুপ পর্ব থেকে জার্মানির বিদায়

ডেস্ক রিপোর্ট   |   বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

কোস্টারিকার সাথে ৪-২ গোলে জয়ের পরও গ্রুপ পর্ব থেকে জার্মানির বিদায়

কোস্টারিকার সাথে ৪-২ গোলে জয়ের পরও গ্রুপ পর্ব পার হতে পারল না মানুয়েল নয়্যারের জার্মানি। কোস্টারিকার ম্যাচটির মধ্যেই লুকিয়ে ছিল জার্মানির জীবন। কাঙ্ক্ষিত জয় পেলে উঠবে পারবে দ্বিতীয় রাউন্ডে। জয় ঠিকই পেয়েছে কিন্তু ভাগ্য সাথে না থাকায় বাদ পড়তে হলো জার্মানির। বলা চলে একপ্রকার ভাগ্যই ছিল না তাদের। হিসাব অনুযায়ী কোস্টারিকাকে হারালেও গ্রুপের অন্য ম্যাচে জাপান স্পেনকে হারালে বাদ পড়তে হতো তাদের। আর তেমনটাই হলো। গ্রুপ ‘ই’ থেকে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নক আউট রাউন্ডে উঠে গেছে জাপান। আর স্পেন উঠেছে রানার্সআপ হয়ে।

রাত ১টার ম্যাচে আল বাইত স্টেডিয়ামে খেলতে নামে জার্মান ও কোস্টারিকা। ম্যাচের শুরু থেকেই কোস্টারিকার গোলমুখে একের পর এক আক্রমণ চালায় জার্মানরা। আর সেই আক্রমণের শুরুটা করেন জার্মান তরুণ তুর্কি জামাল মুসিয়ালা। তবে নাভাসের দক্ষতায় সফল হতে পারেননি এই মিডফিল্ডার। ম্যাচের ৭ মিনিটে আবারো আক্রমণ সেই মুসিয়ালা।

এবার কোস্টারিকার ডিফেন্ডারের ফাঁকি দিয়ে পাস দেন সতীর্থ লিওন গোরেৎসকা। গোরেৎসকা সেই সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেননি। ১০ মিনিটে কোস্টারিকা রক্ষণের তালা ভাঙতে সক্ষম হয় জার্মানি। জার্মানির পাওয়া প্রথম এই গোলটির উৎসও ছিলেন মুসিয়ালা। এই তরুণ ফুটবলার পাস দেন ডেভিড রোউমকে। তার করা ক্রসে মাথা লাগিয়ে গোল করেন সার্জ নাবরি। জার্মানির জার্সিতে হেডে এটাই নাবরির প্রথম গোল।

প্রথম গোলের পর যেন আরল মরিয়া হয়ে ওঠে জার্মানি। যদিও কাঙ্ক্ষিত গোলটা পাচ্ছিল না তারা। তার বড় কারণ নাভাস। আক্রমণ সামলাতে ব্যস্ত থাকা কোস্টারিকা প্রথম সুযোগটা পায় ২৯ মিনিটে। তবে সে সুযোগ তাদের কাজে লাগেনি। ৪০ মিনিটের পর জার্মান ডিফেন্ডারের কয়েকটি বড় ভুলে সুযোগ পেয়ে যায় কোস্টারিকা। যদিও নয়্যার জাদুতে কেশের ফুয়ের ম্যাচে সমতা ফেরাতে পারেনি।

প্রথমার্ধ শেষের ছন্দ ধরেই রেখেই দ্বিতীয়ার্ধ শুরু করে কোস্টারিকা। মাঠে চাপে থাকা জার্মানদের চাপ আরো বাড়ে অন্য ম্যাচের স্পেনের বিপক্ষে জাপান ২-১ গোলে এগিয়ে গেলে। এমন চাপে পড়ে হ্যান্সি ফ্লিক মাঠে নামান নিকলাস ফুলক্রুগকে। তবে তিনি মাঠে নেমে পার্থক্য গড়ার আগেই পার্থক্য গড়ে দেন কোস্টারিকার ইয়েলৎসিন তেহেদা। ৬০ মিনিটে জার্মান ডিফেন্ডার ও গোলরক্ষক নয়্যারের ভুলে গোল করেন এই মিডফিল্ডার। এরপর একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে হ্যান্সি ফ্লিকের দল। বিশেষ করে তরুণ মিডফিল্ডার মুসিয়ালা। তবে ভাগ্যটা তার সাথে ছিল না। কখনো নাভাসের অতিমানবীয় সেভ কিংবা কখনো গোলপোস্ট বাধা হয়ে দাঁড়ায়।

জার্মানির বিপদ আরো বাড়ে কোস্টারিকা দ্বিতীয় গোল করলে। ম্যাচের ৭০ মিনিটে দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় কোস্টারিকা। গোল করেন হুয়ান পাবলো ভারগাস। ম্পেনের বিপক্ষে হার এড়ানোর নায়ক ফুলক্রুগ জার্মানদের সমতা ফেরাতে বড় ভূমিকা রাখেন। ৭৩ আর ৮৫ মিনিটে বদলি হিসেবে মাঠে আসা কাই হ্যাভার্টজের জোড়া গোলের পর নিকলাস ফুলক্রুগের গোলে জয় তুলে নিয়েছে ৪-২ ব্যবধানে। তাতে তাদের নিজেদের লাভ হয়নি তেমন, হয়েছে স্পেনের, নিজেদের ম্যাচে ২-১ গোলে হেরেও তাই শেষ ষোলোয় পা রাখে লুইস এনরিকের দল। ই গ্রুপের সেরা দল হয়ে নকআউটে পা রাখে এশিয়ার দেশ জাপান।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২৩:৩০ | বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২

Swadhindesh -স্বাধীনদেশ |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement
Advisory Editor
Professor Abdul Quadir Saleh
Editor
Advocate Md Obaydul Kabir
যোগাযোগ

Bangladesh : Moghbazar, Ramna, Dhaka -1217

ফোন : Europe Office: 560 Coventry Road, Small Heath, Birmingham, B10 0UN,

E-mail: news@swadhindesh.com, swadhindesh24@gmail.com

%d bloggers like this: