মঙ্গলবার ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কেজরিওয়ালের গ্রেপ্তার হওয়া নিয়ে যা বলছেন বিরোধী নেতারা

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০২৪ | প্রিন্ট

কেজরিওয়ালের গ্রেপ্তার হওয়া নিয়ে যা বলছেন বিরোধী নেতারা

নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রণালয়ের তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) মদ নীতি কেলেঙ্কারির অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করে। স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে কেজরিওয়াল প্রথম কোনো মুখ্যমন্ত্রী যিনি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় গ্রেপ্তার হয়েছেন। তার গ্রেপ্তারের পরপরই সব বিরোধী দল তার পাশে দাঁড়িয়েছে।

তার রাজনৈতিক দল আম আদমি পার্টির কর্মীরা রাস্তায় নেমে পড়েছেন। গভীর রাত পর্যন্ত তারা দিল্লির রাস্তায় বসে বিক্ষোভ করেছেন। আপ নেতৃত্ব জানিয়েছে, শুক্রবার (২২ মার্চ) সারা দেশে তারা বিক্ষোভ করবেন। দিল্লিতে সবচেয়ে জোরালো বিক্ষোভের ঘোষণাও দেন তারা এসময়।

কেজরিওয়ালের গ্রেপ্তার ঘিরে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী এক্স-এ লিখেছেন, শাহেনশাহ ভয় পেয়ে গেছেন। তিনি একটা মৃত গণতন্ত্র চান। মিডিয়াসহ সব সংস্থাকে কবজা করার পর, দলগুলোকে ভাঙা হচ্ছে, প্রধান বিরোধী দলের অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করা হচ্ছে। তারপরেও অসুর-শক্তি থামেনি। এখন তারা নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রীদের গ্রেপ্তার করছে।

রাহুল গান্ধীর বোন প্রিয়াংকা গান্ধী বলেছেন, কেজরিওয়ালের গ্রেপ্তার অন্যায় ও অসাংবিধানিক। অন্যদিকে সমাজবাদী পার্টি নেতা রাহুল গান্ধীর টুইটের জবাবে বলেছেন, বিজেপি হটাও, দেশ বাঁচাও।

দেশটির সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেছেন, বিজেপি অনেকদিন ধরে পরিকল্পনা করছিল। সুযোগ পেলেই তারা যে গ্রেপ্তার করবে তা বোঝা যাচ্ছিল। বিজেপি বুঝতে পারছিল, আপ তাদের পক্ষে যাবে না। আপকে নিয়ে তাদের সুবিধা হচ্ছে না। তাই এভাবে তাকে গ্রেপ্তার করল। যারা বিজেপিকে সাহায্য করছে, তাদের জন্য সব ঠিক আছে। সাহায্য না করলে এটাই করছে।

তৃণমূলের রাজ্যসভার নেতা ডেরেক ওব্রায়েন বলেছেন, আমরা কেজরিওয়ালকে গ্রেপ্তারের নিন্দা করছি। তিনি একজন নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী। এখন নির্বাচন কমিশনই প্রশাসনের দায়িত্বে এবং আদর্শ আচরণবিধি চালু আছে।

তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেছেন, লোকসভা নির্বাচন হার হবে জেনে বিজেপি এখন মরিয়া হয়ে কামড় দিচ্ছে। এজেন্সি দিয়ে অবিজেপি নেতাদের গ্রেপ্তার করা, তাদের সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণা তৈরির চক্রান্ত চলছে।

পশ্চিমবঙ্গে রাজ্য বিজেপির মুখপাত্র সুকান্ত মজুমদার বলেছেন, যতই করো কান্নাকাটি, মাফলারের পর হাওয়াই চটি। কেজরিওয়াল মাফলার ম্যান বলে পরিচিত। আর মমতা বন্দোপাধ্যায়কে হাওয়াই চটি নিয়ে নিয়মিত কটাক্ষ করে বিজেপি।

বিজেপি নেতা রবিশংকর প্রসাদ বলেছেন, উপযুক্ত আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। যাদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে, তাদের আদালতও কোনো রেহাই দিচ্ছে না। আমরা একটা কথাই বলব, আইনকে নিজের কাজ করতে দেওয়া উচিত। এটা শুধু দুর্নীতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া ছাড়া আর কিছু নয়।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ০৫:৪৭ | শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০২৪

Swadhindesh -স্বাধীনদেশ |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

Advisory Editor
Professor Abdul Quadir Saleh
Editor
Advocate Md Obaydul Kabir
যোগাযোগ

Bangladesh : Moghbazar, Ramna, Dhaka -1217

ফোন : Europe Office: 560 Coventry Road, Small Heath, Birmingham, B10 0UN,

E-mail: news@swadhindesh.com, swadhindesh24@gmail.com