মঙ্গলবার ২৩শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

আদালত ব্যবহার করে ‘বিচারিক সন্ত্রাস’ চালানো হচ্ছে, দাবি রিজভীর

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ১৬ আগস্ট ২০২৩ | প্রিন্ট

আদালত ব্যবহার করে ‘বিচারিক সন্ত্রাস’ চালানো হচ্ছে, দাবি রিজভীর

আদালত ব্যবহার করে ‘বিচারিক সন্ত্রাস’ চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

দলটির শীর্ষ এই নেতা বলেছেন, রাষ্ট্রের মালিক জনগণ হলেও তা কেড়ে নেওয়া হয়েছে। আজকে আদালতকে ব্যবহার করে বিচারিক সন্ত্রাস চালানো হচ্ছে। আগে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবহার করে হত্যা, গুম, নির্যাতন করা হতো। এখন শুরু হয়েছে সাজা দিয়ে বছরের পর বছর আটক রাখার প্রক্রিয়া।

বুধবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে বিএনপির নয়াপল্টন কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, আমরা অন্ধকার বিচার মেনে নেবো না। জনগণ এই প্রহসনের বিচার মেনে নেবে না। বিএনপি এই কালো বিচার মানে না। বিএনপিসহ আন্দোলনরত নেতাকর্মীদের দমন করতেই এই প্রক্রিয়া সরকারের একটি মাস্টার প্লান।

আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ক্ষমতায় থাকলে কতকিছু করা যায়, পাহাড়ের উপর নৌকা চালানো যায়- তাই দেখিয়েছে বর্তমান শাসকগোষ্ঠী। আগে কেউ কখনো গায়েবি মামলার কথা শুনেনি। এখন শুনছি লাশের বিরুদ্ধে, পঙ্গু ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে এবং কেউ হজে থাকলেও তার বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে। ২০১৩ সালের মামলায় সাক্ষী তৈরি করে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের সাজা দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে। ইতোমধ্যে কয়েকজনকে সাজা দেওয়া হয়েছে।

বিএনপির এই সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, আজকে মিথ্যা মামলা দিয়ে দেশনেত্রীকে বন্দী রাখা রাখা হয়েছে। আজকে তাকে সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত রাখা হয়েছে। যে মানুষটি গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে দেশবাসীকে এক করেছেন সেই তারেক রহমান এবং যিনি রাজনীতিতে সম্পৃক্ত নন, শুধু জিয়া পরিবারের সদস্য তাই তার বিরুদ্ধেও মিথ্যা মামলা দিয়ে সাজা দেওয়া হয়েছে।

 

রিজভী বলেন, বিএনপি নেতা আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল এবং হাবিবুর রশিদ হাবিবকে দিনে জামিন দিয়ে জজ সাহেব উপরের গায়েবি নির্দেশে রাতেই জামিন বাতিল করেছেন। দেশে ন্যায় বিচারকে পদদলিত করা হচ্ছে। নিম্ন আদালতের বিচারকরা আজ ওপর মহলের কারণে স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না। নিম্ন আদালতের প্রতি আজ মানুষের আস্থা রাখা কঠিন হয়ে পড়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, জ্যেষ্ঠ আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার, মো. মহসিন মিয়া, আব্দুল লতিফ তালুকদার, ওমর ফারুক, রইস উদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:৫৪ | বুধবার, ১৬ আগস্ট ২০২৩

Swadhindesh -স্বাধীনদেশ |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

Advisory Editor
Professor Abdul Quadir Saleh
Editor
Advocate Md Obaydul Kabir
যোগাযোগ

Bangladesh : Moghbazar, Ramna, Dhaka -1217

ফোন : Europe Office: 560 Coventry Road, Small Heath, Birmingham, B10 0UN,

E-mail: news@swadhindesh.com, swadhindesh24@gmail.com