রবিবার ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

নবীগঞ্জের জনতার বাজার টু মৌলভীবাজার সড়কে চরম বেহাল দশা : রাস্তা নয় যেন এক মরণ ফাঁদ

  |   শুক্রবার, ১৩ জানুয়ারি ২০১৭ | প্রিন্ট

নবীগঞ্জের জনতার বাজার টু মৌলভীবাজার সড়কে চরম বেহাল দশা : রাস্তা নয় যেন এক মরণ ফাঁদ

jonota bazar too (1)
ছনি চৌধুরী, নবীগঞ্জ প্রতিনিধি : জনপ্রতিনিধিদের আশারবাণী শুনতে শুনতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন ভুক্তভোগী লোকজন । ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সাথে সংযুক্ত নবীগঞ্জের জনতার বাজার টু মৌলভীবাজার সড়কের আথানগীরি থেকে শতক গজনাইপুর পর্যন্ত রাস্তা চরম বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে । দীর্ঘ দিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীসহ হাজার হাজার মানুষদের।

সড়কটি যেন এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে অভিযোগ রয়েছে, উক্ত সড়ক নির্মাণ কাজে নি¤œ মানের মালামাল ব্যবহার করায় সড়কের অনেকস্থানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে যানচলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। এতে প্রায়ই সড়কে যানবাহন ও পথচারীরা দুর্ঘটনার সম্মুখিন হতে হচ্ছে সড়কের এই বেহাল দশা দেখার যেন কেউ নেই..? সড়কের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্ত হয়ে বেহাল দশা বিরাজ করছে এর মধ্যে বৃষ্টি হলে পানি জমে গর্ত গুলোতে কাদা, নর্দমা একাকার হয়ে সড়কটি যেন পুকুরে পরিনত হয় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নবীগঞ্জ উপজেলা থেকে মৌলভীবাজার জেলা সদরে সাথে যোগাযোগের একমাত্র বাইপাস সড়ক হিসেবে ওই সড়কই এক সময় বেশি চলাচল করতো নবীগঞ্জ উপজেলার মানুষ।

এমনকি মৌলভীবাজারের সিমান্তের এলাকা আথানগীরি ও নবীগঞ্জের শতক, তারালিয়া, লামরোহ, মাহমদপুর, গজনাইপুরসহ ১০/১২টি গ্রাামের প্রায় কয়েক হাজার মানুষের চলাচলের জন্য একমাত্র ভরসা এই সড়কটি এই গ্রাম গুলো থেকে প্রায় ২/৩ হাজার শিক্ষার্থী প্রতিদিন দিনারপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও দিনারপুর কলেজে যাওয়া আসা করে কিন্তু ২বছরের ও বেশী সময় ধরে সড়কের বেশীর ভাগ অংশে কার্পেটিং উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে এতে যানবাহন চলাচলে মারাত্মক অসুবিধার সৃষ্টি হচ্ছে সেই সাথে বিপাকে পড়েছেন স্কুল কলেজে পড়–য়া ছাত্র-ছাত্রীরা গর্ত গুলোতে বৃষ্টির পানি জমে যেন পুকুরে পরিনত হয়ে যায় সড়কটি খানা খন্দকের কারনে সড়কে দুর্ঘটনা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এতে অনেক প্রাণহানীসহ অনেক সমস্যায় পরতে হচ্ছে সাধারন মানুষদেরকে। এ ছাড়া সড়কে দ্রুতগামী যানবাহনগুলো সড়কের ভাঙ্গার কারনে একটি অপরটিকে ওভারট্যাক করতে বেকায়দায় পড়তে হচ্ছে। এর জন্য ওই সড়কে যানচলাচল আগের তুলনায় অনেকটা কমে গেছে। কলেজ পড়–য়া এক ছাত্র এ প্রতিবেদককে জানায়, আমরা শতক থেকে প্রায় ৩ কিঃমিঃ জায়গা পায়ে হেঠে কলেজে যাই কারণ আমাদের চলাচলের প্রধান এই সড়কের এমন অবস্থা হয়েছে যে যেখানে যেতে ২০/২৫ মিনিটে কলেজে পৌছার কথা সেখানে ১ঘন্টারও বেশি সময় লেগে যায় ।

সড়কের দশা বেহাল হওয়ায় আগের মতো গাড়ী পাওয়া যায়না তাই অপেক্ষা করে সময় নষ্ট না করে আমরা পায়ে হেটেই কলেজে যাই হেটে গিয়ে অনেকটা ক্লান্ত হয়ে যাই যার কারনে ক্লাসে তেমন মনযোগ থাকেনা বিশেষ করে চরম বিপাকে পড়তে হয় পরিক্ষার সময়। কারণ পরিক্ষার নির্দিষ্ট সময়ে উপস্থিত হওয়া যায়না। তাই রাস্তা মেরামতের জন্য কর্তৃপক্ষের প্রদক্ষেপ গ্রহনের জন্য দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

স্কুলে যাতায়াতের প্রধান সমস্যা কি এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে দিনারপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র লিমন আহমেদ জানায়, কি আর বলবো স্কুলে যাওয়ার মূল সমস্য এই সড়কটি সড়কের অবস্থা এত খারাপ হওয়ায় প্রতিদিন স্কুলে যেতে মন চায়না। এর মধ্যে এখন প্রতিদিনই বৃষ্টি হয়, সামান্য বৃষ্টি হলেই আমাদের সমস্যায় পড়তে হয়। কারন রাস্তার অনেক বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে গর্তের মধ্যে ময়লা জমে থাকে আর এই ময়লা বৃষ্টির পানি পেলে ভাগাড় হয়ে যায়। ফলে ভাল জামা পড়ে গেলে আর জামা ভাল থাকে না রাস্তার কাদায় নোংড়া হয়ে যায়। তাই সড়কটি সংস্কার করার জন্য সংশ্লিষ্ঠ কতৃপক্ষের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:৫৮ | শুক্রবার, ১৩ জানুয়ারি ২০১৭

Swadhindesh -স্বাধীনদেশ |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

Advisory Editor
Professor Abdul Quadir Saleh
Editor
Advocate Md Obaydul Kabir
যোগাযোগ

Bangladesh : Moghbazar, Ramna, Dhaka -1217

ফোন : Europe Office: 560 Coventry Road, Small Heath, Birmingham, B10 0UN,

E-mail: news@swadhindesh.com, swadhindesh24@gmail.com